মজনুর রহমান

২ মে, ২০২১ , ৩:১৫ পূর্বাহ্ণ ; 122 Views

করোনা পরবর্তী শারীরিক ও মানসিক জটিলতা

করোনা পরবর্তী শারীরিক ও মানসিক জটিলতা

করোনা ভাইরাস বা কোভিড-১৯ থেকে সেরে উঠলেও অনেকের শরীরে ও মনে নানারকম জটিলতা দেখা যাচ্ছে। ব্যক্তি বিশেষে এগুলো বিভিন্ন রকম হচ্ছে। বিশেষজ্ঞরা একে বলছেন ‘পোস্ট কোভিড-১৯’ সিনড্রোম বা ‘লং কোভিড’।

দেখা যাচ্ছে করোনা ভাইরাস থেকে নেগেটিভ হলেও কিছু মানুষের শরীরে কিছু প্রতিক্রিয়া দেখা যাচ্ছে, যেমন:

» প্রচণ্ড শারীরিক দুর্বলতা

» শ্বাসকষ্ট

» বুকে ব্যথা

» মনে না থাকার সমস্যা/ মনোযোগের সমস্যা

» ঘুমের সমস্যা

» হৃদপিণ্ডে ধুকপুক করা

» মাথা ঘোরা

» হাড়ের জোড়ায় ব্যথা

» মানসিক অবসাদ

» পেটের পীড়া বা এ জাতীয় সমস্যা

» কানে ব্যথা বা ভোঁ ভোঁ করা

» স্বাদ ও গন্ধ চলে যাওয়া

» জ্বর, সর্দি, কাশি বা শরীর ব্যথা

» শরীরে গোটা বের হওয়া, ইত্যাদি

কোভিড নেগেটিভ হবার পরেও এ সমস্ত সমস্যার কোনো একটি বা একাধিক লক্ষণ দেখা দিলে আপনি কী করবেন?

বিশেষজ্ঞদের মতে, লক্ষণগুলো সহনীয় হলে একটু সময় দিতে হবে। দীর্ঘ দিন ঘরে বা হাসপাতালে থাকার কারণেও মানসিক সমস্যা বা ঘুমের সমস্যা হতে পারে। নতুন করে প্রচলিত পরিবেশের সাথে খাপ খাইয়ে নিতে শরীর ও মন কখনও কখনও একটু সময় নিয়ে থাকে। সমস্যাগুলোর ক্ষেত্রে রোগীদের জন্য বিশেষজ্ঞদেন পরামর্শ হলো:

» কোভিড নেগেটিভ হওয়ার পরেও দুই সপ্তাহ বিশ্রাম নিন

» ‌একটু সময় নিন, পুষ্টিকর খাবার বিশেষত প্রোটিন জাতীয় খাবার খান।

» ধীরে ধীরে আপনার কাজে সক্রিয় হোন, একবারে শুরু করবেন না।

লক্ষণগুলো অসহনীয় হলে কী করবেন?

» ‌লক্ষণ গুরুতর হলে বা ৪ সপ্তাহের বেশি স্থায়ী হলে প্রথমে একজন মেডিসিন বিশেষজ্ঞ দেখান

» প্রয়োজন অনুসারে তিনি রক্তের কিছু পরীক্ষা করাবেন, রক্তচাপ ও হৃৎস্পন্দন দেখবেন কিংবা বুকের এক্স-রে করিয়ে সেই অনুযায়ী চিকিৎসা দেবেন।

» এছাড়া মানসিক অবসাদ কাটানোর জন্য একজন মনোরোগ বিশেষজ্ঞ বা মনোসামাজিক পরামর্শক দেখাতে হতে পারে।

» এভাবে নিজের চেষ্টা ও বিশেষজ্ঞের পরামর্শে আপনি ধীরে ধীরে সমস্যা কাটিয়ে উঠতে পারেন।

» বিশেষজ্ঞরা বলছেন, নিজের প্রতি আপনার সতর্ক দৃষ্টিই আপনাকে পোস্ট কোভিড-১৯ সিনড্রোম বা লং কোভিড থেকে উত্তরণ ঘটাতে পারে।

[ব্রিটেনের ন্যাশনাল হেলথ সার্ভিসের ওয়েব সাইট অবলম্বনে]