মাহবুবুল ইসলাম জন্মদিন সংখ্যা

মুগ্ধতা.কম

৬ আগস্ট, ২০২০ , ৬:৫১ অপরাহ্ণ ; 582 Views

মাহবুবুল ইসলাম জন্মদিন সংখ্যা

কবি ও সাংবাদিক মাহবুবুল ইসলামের জন্মদিন আজ।

রংপুরের কবিতা ও সাংবাদিকতার জগতে আলাদাভাবে অনেকের প্রিয় তিনি।ছোট ছোট বাক্যের চমৎকার বুননে সহজ কথায় তিনি অসাধারণ সব কবিতা লিখতে পারেন।জন্মদিনে তার প্রতি ভালোবাসা ও শ্রদ্ধা জানিয়ে আমাদের সামান্য আয়োজন।

মাহবুবুল ইসলাম।

পিতা-মরহুম নঈম উদ্দিন আহমেদ, মাতা মরহুমা হামিদা খাতুন। রংপুরের বদরগঞ্জ উপজেলার ঠনঠনিয়া পাড়া গ্রামে জন্ম। প্রাথমিক শিক্ষা নিজ গ্রামে। পরে রংপুরের আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয় ও কারমাইকেল কলেজে শিক্ষালাভ। সত্তরের দশকে সাহিত্য-সংস্কৃতি চর্চা ও সাংবাদিকতায় প্রবেশ l ১৯৭৪ সালে সাংবাদিকতা জীবনের শুরু। দৈনিক কালান্তর, সাপ্তাহিক মহাকাল, দৈনিক উত্তরা, দৈনিক দাবানল, দৈনিক রংপুর, দৈনিক মাতৃভূমি, দৈনিক আজাদী, দৈনিক সংবাদ এবং দৈনিক বাংলায় বিভিন্ন সময়ে বিভিন্নভাবে যুক্ত ছিলেন l ২০০০ সাল থেকে টেলিভিশন চ্যানেল এটিএন বাংলায় রংপুর প্রতিনিধি হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। পরবর্তী সময়ে একই গ্রুপের এটিএন নিউজ চ্যানেলে যুক্ত হন। টেলিভিশন সাংবাদিকতার পাশাপাশি বাংলাদেশ বেতার রংপুর কেন্দ্র খন্ডকালীন  সংবাদ অনুবাদক হিসেবেও দায়িত্ব পালন করছেন তিনি। সবকিছুর পাশাপাশি তিনি একজন নিরলস সাহিত্য ও সংস্কৃতিকর্মী।

আশির দশকে রংপুরে ‘কতিপয় কবিতাকর্মী’ সংগঠন ও ‘সহসা দ্বাদশ’ পত্রিকার মাধ্যমে কবিতাচর্চার এক অন্য দিগন্ত উন্মোচন করেছিলেন। রংপুরে তারাই প্রথম দর্শনীর বিনিময়ে কবিতাপাঠ অনুষ্ঠানের আয়োজন করেন।

রংপুরে তাকে সাংবাদিকতার গুরুও বলা হয়, তার মাধ্যমে অনেক তরুণ এ পেশায় এসে নিজেদের বিকশিত করেছেন।

সাংবাদিকতার ক্ষেত্রে অবদানের জন্য তিনি বেশকিছু পুরস্কার ও সম্মাননা পেয়েছেন। ব্যক্তিগত জীবনে মাহবুবুল ইসলাম স্ত্রী এবং তিন কন্যা সন্তানের জনক। বড় কন্যা একজন চিকিৎসক, বাকী দুজন পড়াশোনা করছে।

মাহবুবুল ইসলামের কবিতা

উৎস

তোমার মধ্যেই খুঁজেছি আশ্রয়

আর যত কিছু সবই গেছি দলি

আমার উৎস তুমি

তুমিহীন মিথ্যে সকলি।

 

বিরহ বৃক্ষ

আমরা দুজন একই শহরে থাকি

মিলন নয় বিরহের ছবি আঁকি,

আমরা দুজন এই শহরের খুনি

প্রিয় মুহূর্তজুড়ে বিচ্ছেদ শুধু বুনি।

 

অরণ্য স্বপ্ন

স্বপ্ন হতে চেয়েছিলাম

অনুরাগের সাথে

কিন্তু তুমি ঘুমোওনি সে রাতে।

 

মানুষের গল্প

কেউ কারও জন্য অপেক্ষা করে না

না জীবন না মৃত্যু না প্রেম,

মানুষের প্রতীক্ষা বড় ক্ষণস্থায়ী

মানুষেরা বুকের ভাষা পড়তে জানে না।

 

দুই ভুবনের গল্প

তুমি চেয়েছিলে শুদ্ধ সংগীত আমি মাতাল গান

দুই ভুবনে দুই সুর বাজে

হলো না ঐকতান।

 

অশ্রুবুনন

ভালোবাসার নাম দিয়েছি প্রবহমান নদী

ওদিকে যেও না বেশি

হারিয়ে যাও যদি

নদী ও নক্ষত্রে খুব

পরানের টান

তোমার জন্য অশ্রু বুনি

বুনি স্বপ্নগান।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •