মাতৃভাষা দিবস সংখ্যা ২০২১ - পদাবলি

মঈনুল হোসেন ফাহাদের কবিতা

২১ শে ফেব্রুয়ারী

ভাষার স্বাধীনতা, মৌলিকতার স্বাধীনতা, 

মত প্রকাশের স্বাধীনতা –

হারিয়ে গেছে অনেক আগেই।

কখনও জড়তায়, কখনও অন্যের ইচ্ছায়,

কখনও বা সংকোচে –

মানুষ স্বতঃস্ফূর্তভাবে বলতে ভুলে গেছে।

সভ্যতা, স্বচ্ছ ব্যক্তিত্ব এসব খ্যাতি আজকাল মানুষের

মৌলিকতা কেড়ে নিয়েছে।

পরাধীনতার পরোক্ষ এই শিকলের দায়ভার-

তথাকথিত লোক-দেখানো সমাজব্যবস্থা-

যার সৃষ্টিকারী স্বয়ং ভুক্তভোগী। 

অদ্ভুত বিষয়টা এখানেই!  কিংবা হতাশা।

এর আগে ভাষার প্রত্যক্ষ হরণে—

রক্ত গেছে,

জীবন গেছে!

তবে দ্বিধাবোধ ছিলো না মোটেও।

টগবগে রক্তের স্রোতে মত প্রকাশের স্বাধীনতা –

মায়ের ভাষায় কথা বলার স্বাধীনতা ফিরে এসেছিল। 

তাদের প্রতি কৃতজ্ঞ, যাদের কারণে

এই অভিযোগ বলি কিংবা আক্ষেপ বলি-

লেখার সুযোগ হচ্ছে। 

বাংলা ভাষার, মায়ের ভাষার মৌলিকতা আমাদের কলমের ভাষা হোক। 

আমাদের ঐতিহ্য আর সংস্কৃতির বোধ জেগে উঠুক।

মাতৃভাষা দিবস সংখ্যা ২০২১ - পদাবলি

মঈনুল হোসেন ফাহাদের কবিতা

২১ শে ফেব্রুয়ারী

ভাষার স্বাধীনতা, মৌলিকতার স্বাধীনতা, 

মত প্রকাশের স্বাধীনতা –

হারিয়ে গেছে অনেক আগেই।

কখনও জড়তায়, কখনও অন্যের ইচ্ছায়,

কখনও বা সংকোচে –

মানুষ স্বতঃস্ফূর্তভাবে বলতে ভুলে গেছে।

সভ্যতা, স্বচ্ছ ব্যক্তিত্ব এসব খ্যাতি আজকাল মানুষের

মৌলিকতা কেড়ে নিয়েছে।

পরাধীনতার পরোক্ষ এই শিকলের দায়ভার-

তথাকথিত লোক-দেখানো সমাজব্যবস্থা-

যার সৃষ্টিকারী স্বয়ং ভুক্তভোগী। 

অদ্ভুত বিষয়টা এখানেই!  কিংবা হতাশা।

এর আগে ভাষার প্রত্যক্ষ হরণে—

রক্ত গেছে,

জীবন গেছে!

তবে দ্বিধাবোধ ছিলো না মোটেও।

টগবগে রক্তের স্রোতে মত প্রকাশের স্বাধীনতা –

মায়ের ভাষায় কথা বলার স্বাধীনতা ফিরে এসেছিল। 

তাদের প্রতি কৃতজ্ঞ, যাদের কারণে

এই অভিযোগ বলি কিংবা আক্ষেপ বলি-

লেখার সুযোগ হচ্ছে। 

বাংলা ভাষার, মায়ের ভাষার মৌলিকতা আমাদের কলমের ভাষা হোক। 

আমাদের ঐতিহ্য আর সংস্কৃতির বোধ জেগে উঠুক।