উপভাষা, ভালোবাসা

নয়া কইন্যা

সোহানুর রহমান শাহীন

১ ফেব্রুয়ারি, ২০২২ , ৬:১৬ অপরাহ্ণ ; 203 Views

নাকের নেচোত নথ কইন্যার

কানোত মাকড়ী-পাশা

কমরোত এখান বিছা পিন্দি

পুরাইল মনোত আশা।

 

মাতাত কইন্যা টিকলি দেছে

পায়োত আচে নূপুর

সোনার রুলী দুখ্যান হাতোত

দ্যাকে ঘুপুর ঘুপুর।

 

সোন্দোর এখান থ্যাবড়া মালা

থুইচে ঝুলি গালাত

নউগের গোড়াত আংটি আচে

মেন্দি হাতের তালাত।

 

সাজে কইন্যা বিয়্যার সাজোত

যাইবে শ্বশুর বাড়ি

সোউগ ফ্যালেয়া যাবান নাগে

বাপের ভিটা ছাড়ি।

 

মা’ক জড়েয়া ডুকরি কান্দে

কান্দে বাপের আগোত

এক বান্দোনোত হাঁটে কইন্যা

গাবরু হাঁটে সাথোত।।

 

আঞ্চলিক শব্দের চলিতরূপঃ

কইন্যা= পাত্রী, রুলি= কাঁকন,  ঘুপুর ঘুপুর= বারবার, থ্যাবড়া= চ্যাপ্টা,

মাকড়ী-পাশা = কানের ঝুমকা

পুরাইল= পূর্ণ করা, নউগ= আঙ্গুল, সাজে= সাজুগুজু, তালাত= হাতের তালু,

বিয়্যার= বিয়ের, জড়েয়া= জড়িয়ে ধরে, আগোত= সামনে, বান্দোনোত= বন্ধনে, গাবরু= বর, সাথোত= সঙ্গে।

মন্তব্য করুন