অমর একুশে: চিরায়ত কবিতামালা

পঞ্চানন কর্মকার

রফিক আজাদ

২১ ফেব্রুয়ারি, ২০২২ , ১০:৪৭ পূর্বাহ্ণ ; 159 Views

যুগ-পরম্পরাক্রমে প্রাগৈতিহাসিক উৎস থেকে

উৎসারিত হ’তে-থাকা নিরন্তর মনুষ্য-জীবন;

মুদ্রিত গ্রন্থের মূল্যে ইতিহাস: মানব-সভ্যতা

দীর্ঘকালব্যাপী অগ্রযাত্রা আর মনন-প্রবাহ।

বাঙালির দীর্ঘ ইতিহাসে সমৃদ্ধির সূত্রে এই

গ্রথিত হয়েছে গ্রন্থ; তোমাকেই ঘিরে চলে জানি

অন্বেষণ: আধুনিক বাঙালির অন্বিষ্ট মনন;

হরফ ঢালাই কাজে সার্বভৌম পাঁচটি আঙুল,

সমগ্র শতাব্দী ব্যেপে চলে দ্রুত মনন-মুদ্রণ;

প্রকাশন-শিল্প ইতিহাসে অনন্য তোমার নাম,

মুদ্রণের সৌকর্য-বর্ধনহেতু চলে বিবিধ নিরীক্ষা,

হরফ চলনশীলে প্রবর্তিত হয় আধুনিক

মুদ্রণপদ্ধতিÑ বিদেশী বান্ধব, ভাই, অকৃত্রিম

অদম্য উদ্যোগী আর ব্যগ্র পর্তুগিজ অগ্রদূত

প্রাচ্য-ভাষাবিশারদ আরো কিছু বিদেশী সুহৃদ

দিয়েছে সুদৃঢ় ভিত্তি মুদ্রাক্ষর-নির্মাণ শিল্পটি;

টাইপ-কর্তন কাজে নিয়োজিত তোমার পেশি ও

মেধা অবহেলে সাফল্যের চূড়া স্পর্শ করেছিলো!

ভাষা-সাহিত্যের প্রাণকেন্দ্র তোমার কামারশালা,

পঞ্চাশ বছর ধ’রে ত্রিবেণী গ্রামের কর্মকার

পরিবারে পরিচর্যা পায় বাঙালির মাতৃভাষা;

প্রকৃত প্রস্তাবে এই ‘পাইকা’ হরফে বাঙালির

নিজস্ব সভ্যতা, কৃষ্টি যথাযোগ্য সমাদর পায়।

তোমার আঙুল থেকে উৎসারিত অন্তহীন নদী

উনিশ শতকে রুগ্্ণ বাঙালির পুনর্জাগরণে

বিরাট ভূমিকা রেখেছিলো। আধুনিক বাঙালির

রক্তে আজো ঢেউ তোলে আরক্তিম পাইকা টাইপ।

তোমার ছেনির ঘায়ে তৈরি হ’লো প্রিয় বর্ণমালা।

 

[রফিক আজাদ (১৪ ফেব্রুয়ারি ১৯৪২ – ১২ মার্চ ২০১৬) ছিলেন একজন বাংলাদেশী আধুনিক কবি। তিনি ষাটের দশকের অন্যতম প্রধান কবি হিসেবে চিহ্নিত।

মন্তব্য করুন